• Home
  • All News
  • চরম্বা ইউনিয়ন নামকরণের ইতিহাস

চরম্বা ইউনিয়ন নামকরণের ইতিহাস

চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার নদী-পাহাড় ঘেরা চরম্বা  ইউনিয়ন। বিবিরবিলা চরম্বা ইউনিয়নের একটি গ্রাম।

এখানে হিন্দু বৌদ্ধ ও মুসলিম সম্প্রদায়ের মানুষের মাঝে যে মেলবন্ধন আছে তা সত্যিই প্রশংসনীয়। যদিও আমি অন্য প্রসঙ্গে লিখছি তবুও বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মেলবন্ধন আমার চিত্তকে এমনভাবে আন্দোলিত করেছে যে অপ্রাসঙ্গিক হলেও বিষয়টি তুলে ধরেছি। এখন টু দ্যা পয়েন্টে আসি, বিবি=স্ত্রী, বিলা= বিলানো/ বিতরণ করা। বিবিরবিলা বা বিবিবিলা অর্থ দাঁড়ায় বিবিবিলানো মানে বউ বিলানো। অতি সম্প্রতি লোহাগাড়া উপজেলার চেয়ারম্যানও সেই সুযোগ গ্রহণ করেছেন!

বাইয়ার পাড়া চরম্বা ইউনিয়নের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। বাইয়ার পাড়া নামকরণের ইতিহাস বেশ পুরনো। এখানে একসময় বাইজি খানা ছিলো। গান বাজনার তালে তালে বাইজিরা নাচতো আর সুরা পরিবেশন করতো। সেই বাইজি খানার বদৌলতে বাইজি পাড়া নামধারণ করলেও কালের বিবর্তনে সেই নাম কিঞ্চিত পরিবর্তন করে বর্তমান নাম বাইয়ার পাড়া নামধারণ করে।

নাপার টিলা চরম্বা ইউনিয়নের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকা। ছোট ছোট টিলা গুলো ছিল নানা পাপকর্মের জন্য কুখ্যাত। এবং এলাকাটি না-পাক এলাকা হিসেবে পরিচিত পায়। নামধারণ করে না-পাকটিলা! না-পাকটিলা সময়ের ব্যবধানে নাপারটিলা নামধারণ করে।

এমন কোন এলাকা নেই যেখানে গোরু চরানো হতো না, এবং গোরু আম্বা আম্বা সরে ডাকতো না, তাই বলছি চরম্বা নামকরণের সাথে গোরু চরানো বা আম্বা আম্বা স্বরে ডাকের সাথে কোন সম্পর্ক নেই।

বরং উপরে বিভিন্ন এলাকার নামকরণের সাথে সংগতি রেখে নিম্নে উল্লেখিত নামটিই সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য বলে মনে করি।

উপরে আলোচিত এলাকাগুলোর নাম বিশ্লেষণে দেখা গেছে পুরো এলাকা জুড়ে মদ্যপান থেকে শুরু করে নানাধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ চলতো টিলা বেষ্টিত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত এই এলাকাটিতে অতএব আমরা এই এলাকার সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য নাম হিসেবে পাই ওরম্বা, চরম্বা নয়! ওরম্বা আবার কি? ওরম্বা শব্দের অর্থ হচ্ছে লম্পট! কিন্তু সময়ের ব্যবধানে ওরম্বা নামটিই পরিবর্তিত হয়ে চরম্বা নামে থিতু হয়েছে।


লেখাঃ এরশাদ মিয়া, সমাজ কর্মী।