• Home
  • All News
  • পটিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার ছাত্রলীগ নেতা

পটিয়ায় কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টা মামলায় গ্রেফতার ছাত্রলীগ নেতা

পটিয়া প্রতিনিধিঃ 

পটিয়ায় এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে র‌্যাব-৭ এর একটি টিম শাহাদাত হোসেন নামে এক জনকে গ্রেফতার করেছে। সে উপজেলার কচুয়াই ইউনিয়নের শেখ মোহাম্মদ পাড়ার নুরুল আলমের পুত্র।

গত ১০ জুলাই (শনিবার) রাত সাড়ে ১০ টায় উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের গুয়াতলি গ্রামের সাবিত্রী আশ্রম এলাকায় ওই কলেজ ছাত্রীকে কৌশলে ডেকে এনে ধর্ষণের পর ছুরিকাঘাত করে হত্যার চেষ্টা চালায়। এক পর্যায়ে রাস্তার পাশে ঝোপঝাড়ের মধ্যে ফেলে যায়। পরে স্থানীয় একব্যক্তি রক্তাক্ত অবস্থায় ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে পটিয়া হাসপাতাল ও পরে চমেক হাসপাতালে প্রেরণ করে।

এ ঘটনায় থানায় কলেজ ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে একটি মামলা করলে র‌্যাব-৭ অভিযান চালিয়ে শাহদাতকে গ্রেফতার করে। 

এ ব্যাপারে অনলাইন পেপার২৪ কে পটিয়া থানার ওসি রেজাউল করিম মজুমদার জানিয়েছেন, প্রেমের ফাঁদে ফেলে ধর্ষণ ও হত্যা চেষ্টার অভিযোগে আসামী শাহদাতকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কলেজ ছাত্রীর ভাই তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেছে। আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে ছাত্রলীগের কর্মী বলে স্বীকার করেছে।

বিষয়টি খতিয়ে দেখে জানা যায় শাহাদাত হোসেন একজন বিবাহিত।  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সেই ছবিও রয়েছে। তিনি সদ্য ঘোষিত কলেজ কমিটির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক।

তবে এই নিয়ে অনেক ছাত্রলীগ নেতার প্রশ্ন একজন বিবাহিত কিভাবে ছাত্রলীগের পদ পেলে? তারা কার ইন্ধনে কিশোর গ্যাং লিডার হলো? তার ক্ষমতার উৎস যারা তাদেরকেও আইনের আওতায় আনার দাবি জানান সাধারণ কর্মীরা।   

Most Read

Popular News